গাজীপুর প্রতিনিধি:

গাজীপুরের কাশিমপুরে এক মাদ্রাসাছাত্রী কিশোরীকে (১৩) রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে স্কুলের ভিতর ধর্ষণ করে পালিয়েছে দুই বখাটে।

পুলিশ ধর্ষকদের গ্রেফতার করতে না পারলেও মামলা সূত্রে তাদের পরিচয় জানিয়েছে।

ভূক্তভোগী কিশোরীটির মা বাদী হয়ে আজ সকালে কাশিপুর থানায় দুজনকে আসামি করে ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্ত আসামিরা হল নওগাঁ সদর থানার রাজ্জাকপুর এলাকার সম্রাট হোসেন শান্ত ও ভবানিপুরের শাকিল আহম্মেদ। তারা গাজীপুরের কাশিমপুরে ভাড়া থাকে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, কাশিমপুর এলাকায় পরিবারের সঙ্গে ভাড়া বাসায় থাকে ওই কিশোরী। বুধবার
দুপুরে কিশোরীটি  প্রতিবেশী এক শিশুকে খুঁজতে বাসা থেকে বের হয়। রাস্তায় শান্ত ও শাকিল কিশোরীকে মুখচেপে ধরে জোর করে  পাশের একটি স্কুলের ভেতর নিয়ে ধর্ষণের পর দুই বখাটে তাৎক্ষনিক পালিয়ে যায়।
কিশোরীটির চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে বাসায় পৌছে দেয়।

সন্ধ্যায় ওই কিশোরীর মা ও বাবা কর্মস্থল থেকে বাসায় ফিরলে ঘটনাটি জানতে পারে। আজ সকালে কিশোরীর মা বাদী হয়ে কাশিমপুর থানায় সম্রাট হেসেন শান্ত ও শাকিলকে আসামি করে মামলা করেন।

কাশিমপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রফিকুল ইসলাম মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ভূক্তভোগী কিশোরীকে চিকিৎসার জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টায় আমরা ওই এলাকায় ফোর্স পাঠিয়েছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *