জেলা প্রতিনিধি,কুড়িগ্রাম:
কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার কাঁঠালবাড়ি ইউনিয়নের দাশেরহাট এলাকায় প্রাইভেটকার ও বিআরটিসি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের তিন জনসহ চারজন নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) সকালে  কুড়িগ্রাম-রংপুর মহাসড়কের আরডিআরএস বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন শিশুসহ আরও দুইজন।
নিহতরা হলেন- প্রাইভেটকারের যাত্রী নরসিংদীর জেলার শিশু পরিবারে কর্মরত সিনিয়র কারিগরি প্রশিক্ষক (টিআই) আকবর হোসেন(৬২), তার স্ত্রী বিলকিস বেগম (৪৫), ছেলে বিল্লল হোসেন (২৫) ও প্রাইভেটকারের চালক।
আহতরা হলেন- আকবর হোসেনের মেয়ে আয়শা সিদ্দিকা (১৪) ও প্রাইভেটকার চালকের সহকারী।

স্থানীয়রা জানায়, বৃহস্পতিবার সকালে কুড়িগ্রাম-রংপুর মহাসড়কের আরডিআরএস বাজার এলাকায় কুড়িগ্রাম থেকে ছেড়ে যাওয়া বিআরটিসি’র একটি বাসের সঙ্গে কুড়িগ্রামগামী একটি প্রাইভেটকারের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই প্রাইভেটকার চালকের মৃত্যু হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় প্রাইভেটকারের পাঁচ যাত্রীকে উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়।

কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. মেহেরুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, হাসপাতালে নেওয়ার আগেই বিল্লাল হোসেন ও প্রাইভেটকারের চালকের মৃত্যু হয়। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মজিবুর রহমান ও বিলকিস বেগমের মৃত্যু হয়। আহত একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কুড়িগ্রাম সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আনোয়ারুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, ঘটনার পরপরই বিআরটিসি বাসের চালক পালিয়ে গেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *