নিজস্ব প্রতিবেদক:

করোনাভাইরাস পজিটিভ অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ায় ডাক বিভাগের মহাপরিচালক (ডিজি) সুধাংশু শেখর ভদ্রের অপসারণ চেয়েছে সংসদীয় কমিটি। এ ছাড়া তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগও রয়েছে।

বুধবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়। এ সময় ডাক বিভাগের ডিজি সুধাংশু শেখরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ এবং করোনাভাইরাস পজিটিভ থাকা অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যাওয়ার ঘটনা নিয়ে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেন কমিটির সদস্যরা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বৈঠকের সভাপতি বেনজীর আহমেদ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বৈঠকে সব সদস্য বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন। সদস্যরা তাকে বরখাস্ত করতে বলেছেন।’

সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘ডাক বিভাগের মহাপরিচালক সুধাংশু শেখর ভদ্রের দুর্নীতির বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়। তদন্তের ক্ষেত্রে তার স্ব-পদে বহাল থাকার বিষয়টি সবাইকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে মর্মে সভায় মতামত দেওয়া হয়। করোনা পজিটিভ থাকা অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়টিও সন্দেহজনক বলে অভিমত প্রকাশ করা হয়। তাই অতি দ্রুত তাকে দায়িত্ব থেকে অপসারণের জন্য বৈঠকে জোর সুপারিশ করা হয়।’

বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, করোনাভাইরাস টেস্টে পজিটিভ হওয়ার পরও একটি অনুষ্ঠানে ডাকের ডিজি গণভবনে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এ ছাড়া ডাক বিভাগের ডিজির বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগও রয়েছে। পোস্ট-ই-সেন্টার ফর রুরাল কমিউনিটি প্রকল্প পুরোপুরি বাস্তবায়ন না করে শত কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে গত ১ সেপ্টেম্বর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

এ ছাড়া তার বিরুদ্ধে পোস্ট-ই-সেন্টার ফর রুরাল কমিউনিটি প্রকল্পের কেনাকাটা, আইসিটি বেজড রুরাল পোস্ট অফিস প্রকল্প, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য ভবন নির্মাণ প্রকল্প, সোলার প্যানেল প্রকল্প, পোস্টাল ক্যাশ কার্ড প্রকল্প ও ডাক বিভাগের সদর দপ্তর ভবন নির্মাণ ও টেন্ডার প্রক্রিয়ায় দুর্নীতিসহ নানাভাবে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে।

বৈঠকে সভাপতিত্বকারী কমিটির সদস্য বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘কমিটির বৈঠকে সবাই একমত হয়ে তাকে অপসারণের সুপারিশ করা হয়। তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ দুদকের অনুসন্ধানাধীন রয়েছে। এ ছাড়া তিনি করোনা পজিটিভ হয়েও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে গিয়েছিলেন। সেটি ঠিক হয়নি বলেই কমিটির সবাই একমত হয়েছেন। এসব বিষয়ে কমিটির বৈঠকে আলোচনা হয়। আলোচনায় তাকে অপসারণের কথা বলা হয়। পরে সেটি কমিটির সুপারিশ হিসেবেও গৃহীত হয়।’

সংসদীয় কমিটির এই বৈঠকে ডাকের মহাপরিচালক নিজেও উপস্থিত ছিলেন। তবে এসব অভিযোগের বিষয়ে তিনি কোনো কথা বলেননি বলেও জানান কমিটির সদস্য অপরাজিতা হক।

বেনজীর আহমদের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল, আহমেদ ফিরোজ কবির, নুরুল আমিন, মনিরা সুলতানা, জাকিয়া পারভীন খানম এবং অপরাজিতা হক অংশ নেন। এ ছাড়া বিশেষ আমন্ত্রণে ডাক, টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বৈঠকে যোগ দেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *