সিএনএস ডেস্ক:

অতিমারী ভাইরাস করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে আগের সব রেকর্ড ভেঙে সর্বোচ্চ সংখ্যক রোগী শনাক্ত হয়েছে। গত একদিনে বিশ্বে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ৫ লাখ ৭৩ হজারেরও বেশি। আর এ ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজারেরও বেশি মানুষের।

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্যানুযায়ী, শনিবার (৩১ অক্টোবর) সকাল পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ১১ লাখ ৯৩ হাজার ৭৪৪ জনের এবং আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ কোটি ৫৮ লাখ ৯৯ হাজার ৫১ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩ কোটি ৩২ লাখ ৪৮ হাজার ৯৪৪ জন।

বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, ২ লাখ ৩৫ হাজার ১৫৯ জন। বিশ্বে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যাও এই দেশটিতে। বিশ্বের ক্ষমতাধর এ দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৯৩ লাখ ১৬ হাজার ২৯৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় দ্বিতীয় এবং মৃতের সংখ্যায় তৃতীয় অবস্থানে আছে ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৮১ লাখ ৩৬ হাজার ১৬৬ জন। এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ লাখ ২১ হাজার ৬৮১ জন।

করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় তৃতীয় এবং মৃতের সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৫ লাখ ১৯ হাজার ৫২৮ জন। এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ লাখ ৫৯ হাজার ৫৬২ জন।

করোনায় মৃতের সংখ্যার দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে মেক্সিকো। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৯০ হাজার ৭৭৩ জন। আর এ পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে ৯ লাখ ১২ হাজার ৮১১ জন।

আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে আছে রাশিয়া। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১৫ লাখ ৯৯ হাজার ৯৮৬ জন। আর মৃতের সংখ্যা ২৭ হাজার ৬৫৬ জন।

সুস্থতার দিক থেকে প্রথম অবস্থানে উঠে এসেছে ভারত (৭৪ লাখ ৩০ হাজার ৯১১ জন), দ্বিতীয় অবস্থানে আছে যুক্তরাষ্ট্র (৬০ লাখ ২৪ হাজার ৫১২ জন) এবং তৃতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল (৪৯ লাখ ৬৬ হাজার ২৬৪ জন)।

গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৫টি দেশে ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।

সূত্র:-সময় নিউজ

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *