নিজস্ব প্রতিবেদক:


দেশে মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে সরকার ঘোষিত কঠোর বিধিনিষেধ চলছে। অকারণে বের হওয়ায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ৬২১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী সড়ক পরিবহন আইন অনুসারে জরিমানা করা হয়েছে ১৯ লাখ ২২ হাজার ৫৫০ টাকা। এছাড়া ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৩৪৬ জনকে এক লাখ ৬ হাজার ৪৫০ টাকা জরিমানা করা হয়।

শনিবার ডিএমপির (মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশনস) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (এডিসি) ইফতেখায়রুল ইসলাম গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশের দাবি, যারা জরিমানা দিয়েছেন এবং গ্রেপ্তার হয়েছেন তারা কঠোর বিধিনিষেধে ঘর থেকে বের হওয়ার কোনো যৌক্তিক কারণ দেখাতে পারেননি।

পুলিশের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তারা জানায়, রাজধানীর তেজগাঁও, শাহবাগ, রমনা, মোহাম্মদপুর, মতিঝিল, মিরপুর, গুলশান থেকে গাড়িগুলোকে জরিমানা ও আটক করা হয়। আটকদের বিভিন্ন মেয়াদে সাজাও দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ডিএমপি সূত্রে জানা গেছে, সরকার ঘোষিত কঠোর বিধিনিষেধের আজকে দিয়ে টানা তিনদিনে মোট ১৪৯১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। জরিমানা করা হয়েছে মোট ২৯ লাখ ৩১ হাজার ১০০ টাকা।

এডিসি ইফতেখায়রুল ইসলাম বলেন, পুলিশ বিধিনিষেধ কার্যকর করতে সক্রিয় আছে। রাজধানীতে অপ্রয়োজনে মানুষজন খুব কমই বের হয়েছে। যারা বের হয়েছে তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। কারণ জানাতে না পারলে আটক করা হচ্ছে।

এদিকে অন্য দুই দিনের চেয়ে রাজধানীতে আজ মানুষের উপস্থিতি বেশি দেখা গেছে। পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সরব উপস্থিতি দেখা গেছে। তবে অলিগলি, কাঁচাবাজার ও নিত্যপ্রয়োজনীয় বাজারের অবস্থা ছিলো আগের মতোই।

এ বিষয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিরপুর বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মাহাতাব উদ্দিন বলেন, বিধিনিষেধের তৃতীয় দিনেও আইন না মানায় মিরপুর অঞ্চলেই অর্ধ শতাধিক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।

এর আগে (৩০ জুন) বিকেলে কঠোর বিধিনিষেধ প্রতিপালনে মাঠ পর্যায়ের পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ।

একইদিন সকালে সংবাদ সম্মেলন ডেকে ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেন, অকারণে কেউ ঘর থেকে বের হলে গ্রেপ্তার করা হবে। দণ্ডবিধির ২৬৯ ধারায় মামলা দিয়ে তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

এর আগে সরকার ঘোষিত কঠোর বিধিনিষেধের প্রথম দিনে রাজধানীতে গ্রেপ্তার হয় ৫৫০ জন, দ্বিতীয় দিনে ৩২০ জন ও আজ তৃতীয় দিনে সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী ৬২১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *