বিনোদন প্রতিবেদক:
বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যক্তি জীবনের অজানা ও অদেখা গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে প্রামাণ্যচিত্র ‘হাসিনা: আ ডটার’স টেল’। প্রামাণ্যচিত্রটি এর আগে প্রেক্ষাগৃহ ও দেশ বিদেশের বিভিন্ন জায়গায় প্রদর্শিত হয়েছে। এবার প্রদর্শিত হবে টেলিভিশন চ্যানেলে।

শুক্রবার বাংলাদেশ টেলিভিশন ছাড়াও আটটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচারিত হবে পিপলু খান পরিচালিত ‘হাসিনা: আ ডটার’স টেল’।

সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, শুক্রবার সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশন, রাত ১১টায় এটিএন নিউজ, সকাল সাড়ে ১১টায় চ্যানেল আই, দুপুর ১২টায় একুশে টেলিভিশন, দুপুর ৩টায় বাংলাদেশ টেলিভিশন, একই সময়ে একাত্তর টেলিভিশন, বিকাল ৫টায় বিজয় টেলিভিশন ও বিকাল ৫টা ৪৫ মিনিটে চ্যানেল টোয়েন্টিফোরে এ প্রামান্যচিত্র প্রদর্শিত হবে।

এছাড়াও মাছরাঙা টেলিভিশনে সকাল ১১টায় প্রচারের পর তা পুনরায় প্রচার হবে রাত ১২টায়।

১৯৫২ সালে পরিবারের সদস্যদের সাথে ঢাকায় আসা থেকে শুরু করে শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত ও রাজনৈতিক জীবনের বিভিন্ন ঘটনা উঠে এসেছে এ প্রামাণ্যচিত্রে।

১৯৭৫ সালের ১৫ অগাস্ট দুই বোন শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বিদেশে থাকা অবস্থায় পরিবারের সব সদস্যসহ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করা হয়। এরপর নির্বাসিত জীবন কাটিয়ে ১৯৮১ সালে শেখ হাসিনার দেশে ফেরা, দিক হারানো আওয়ামী লীগের হাল ধরে দলকে আবার কক্ষপথে ফেরানো, স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন, জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে প্রধানমন্ত্রীত্ব- সব বিষয়ই প্রামাণ্যচিত্রে তুলে এনেছেন নির্মাতা।

শেখ হাসিনাকে নিয়ে নির্মিত এ প্রামাণ্যচিত্রে খুব স্বাভাবিকভাবেই উঠে এসেছে বাবা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাথে তার সম্পর্ক, তার সংস্পর্শে বেড়ে ওঠা, বাবার রাজনৈতিক আদর্শের প্রতি তার অবিচল আস্থা ও বিশ্বাসের বিষয়টি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *