নিজস্ব প্রতিবেদক:
অর্থ-প্রাচুর্যের অভাব থাকলেও ঈদের খুশি দোলা দিয়েছিল আশ্রয়হীন-অভিভাবকহীন পথশিশু ও ফুটপাতে বসবাসকারীদের মনে। তারা বিভিন্ন বাসা থেকে সংগ্রহ করেন কোরবানির মাংস।

কেউ পেয়েছেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনসহ বড় মনের মানুষের সাহচর্য। অনেকে আবার বিভিন্ন মানুষের সংগ্রহ করা মাংস কিনে স্বাদ মিটিয়েছেন কোরবানির।

ঢাকা বিশ্বিবিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্য ও টিএসসির বারান্দায় রাতে ঘুমান বাবা-মাহীন শিশু ফয়সাল ও শান্তা। ঈদ উপলক্ষে শিশু স্বর্গ নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের দেয়া খাবার খেয়ে মনের আনন্দে গান গাচ্ছে তারা।

ঢাবির ফুটপাতে সন্তানকে নিয়ে বসবাসকারী স্বামী পরিত্যক্তা মিন্টুর অর্থ-বিত্তের অভাব থাকলেও মনের দিক দিয়ে তিনি সম্পদশালী। নিজেদের সর্বোচ্চ সামর্থ্য দিয়ে আশ্রয়হীন ও পথশিশুদের মুখে হাসি ফোটানোর চেষ্টা করছেন প্রকৌশল বিদ্যার শিক্ষার্থী জুয়ারিয়া ও শুভ।

করোনাকালীন সময় দরিদ্রদের জন্য টিএসসি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নিয়মিত খাবার আয়োজন করা ‘শিশু স্বর্গ’ ও ‘সূর্যসারথী’ নামে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ঈদ উপলক্ষে বিশেষ খাবারের আয়োজন করে। তাদের দেয়া সুস্বাদু খাবার খেয়ে ঈদের আনন্দ উপভোগ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার পথশিশুরা ও ফুটপাতে থাকা আশ্রয়হীন মানুষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *