রোকনুজ্জামান সবুজ,জামালপুর:

জামালপুর সদর উপজেলার নরুন্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান আলী সরকারের বিভিন্ন অনিয়ম দুর্নীতির প্রতিবাদ করায়
পরিষদের ডিজিটাল সেন্টারের নারী উদ্যোক্তা নাজমা খাতুনকে লাঞ্ছিত করে পরিষদ থেকে বের করে দেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগী নারী উদ্যোক্তা নাজমা খাতুন।

শুক্রবার  বাংলাদেশ ডিজিটাল ফোরাম, নারী উদ্যোক্তা জামালপুর জেলা শাখার উদ্যোগে জামালপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

ওই সংবাদ সম্মেলনে নারী উদ্যোক্তা বলেন,তিনি গত ২০১০ সাল থেকে নরুন্দী ইউনিয়ন পরিষদে ডিজিটাল সেন্টারে নারী উদ্যোক্তা হিসাবে কাজ করে আসছেন। তার অভিযোগ,চেয়ারম্যান শাহজাহান আলী সরকার তিনি দীর্ঘ দিন যাবত শিশু ভাতা,বয়স্ক ভাতা,প্রতিবন্ধী
কার্ডসহ বিভিন্ন সরকারী বরাদ্ধকৃত সাহার্য্য সঠিক ভাবে বিতরণ না করে অসহায় মানুষের নামে বরাদ্ধকৃত বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছেন।

মহামারী করোনা কালিন সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দ্দেশে অসহায় দরিদ্রদের জন্য মোবাইলে ২হাজার ৫ শত টাকা বিতরণের তালিকার ক্ষেত্রে চেয়ারম্যান নিজের লোকজনের মোবাইল নাম্বার তালিকা অন্তভূক্তি করতে চেয়ে ছিলেন। সে সময় নারী উদ্যোক্তা প্রতিবাদ করায় তার প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে গত ১জুলাই/২০ ইং তারিখে চেয়ারম্যান চরম দুর্ব্যবহার করে পরিষদ থেকে জোর করে বের করে দিয়েছেন। তাই তিনি বাধ্য হয়ে নিজ বাড়িতে বসে বর্তমানে সাধারণ মানুষের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন বলে সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেন।

এ বিষয়টি তিনি জেলা ও উপজেলা প্রশাসনসহ বিভিন্নমহলে জানালে চেয়ারম্যান আরো ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে নানা ভাবে হয়রানীকরাসহ   হুমকী দিয়ে আসছেন।

প্রাণনাশের হুমকি

একই সংবাদ সম্মেলনে মোয়াল্লেম আব্দুল হক হত্যা মামলার বাদী নিহতের স্ত্রী মরিয়ম আক্তার তিনি অভিযোগ করেন, তার স্বামী হত্যা মামলার সিআইডি চার্জশীট ভুক্ত প্রধান আসামী ইউপির চেয়ারম্যান শাহজাহান আলী সরকার জামিনে এসে চেয়ারম্যানের প্রভাব খাটিয়ে তাকে প্রাণনাশের হুমকী দিচ্ছেন।

বর্তমানে তিনি পরিবার পরিজন নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এই জন্য তিনি থানায় একটি জিডি করেছেন। তিনি
অশ্রুসিক্ত চোখে তার স্বামীর হত্যাকারি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অবিলম্বে জামিন বাতিল করাসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে তার চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতির দাবী জানিয়েছেন নিহতের স্ত্রী ।

এ সময় বিভিন্ন ইলেট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখিত বিষয় গুলো নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান আলী সরকারেরকাছে মোবাইল ফোনে অনিয়ম দুর্নীতি ও প্রাণ নাসের হুমকি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি তা’ সম্পূণরূপে অস্বীকার করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *