নিজস্ব প্রতিবেদক,সাভার:

সাভারের আশুলিয়ায় নার্গিস স্যোয়েটার নামে একটি তৈরি পোশাক কারখানায় গুলি চালিয়ে ও ভাঙচুর করে নগদ টাকা লুট করেছে দুর্বৃত্তরা। এসময় দুর্বৃত্তদের ছোড়া গুলি ও মারধরে গুলিবিদ্ধসহ আহত হয়েছেন কারখানাটির শ্রমিকসহ দুইজন। তবে এ ঘটনায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেও পুলিশ দুর্বৃত্তদের কাউকে আটক করতে পারেনি।

রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে আশুলিয়ার আড়িআঁড়া মোড় এলাকায় নার্গিস স্যোয়েটার কারখানায় এই ঘটনা ঘটে।

এঘটনায় নূর আলম ও সাকিব নামে আহত একজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে নূর আলম নার্গিস স্যোয়েটার কারখানার অপারেটর হিসেবে কর্মরত ও সাকিব অপর আরেকটি কারখানার শ্রমিক।

কারখানাটির স্বত্তাধিকারী মো. রাজু অভিযোগ করে বলেন, রাত সাড়ে ৮টার দিকে ১০-১৫ জন দুর্বৃত্ত তার কারখানার সামনে এসে অতর্কিত গুলি ছুড়ে তান্ডব চালাতে থাকে। এসময় তার কারখানার নূর আলম নামে এক শ্রমিকের পায়ে গুলি করে দুর্বৃত্তরা। এক পর্যায়ে দুর্বৃত্তরা কারখানার ভিতরে ঢুকে ক্যাশের ড্রয়ার ভেঙ্গে নগদ ৬০ হাজার টাকা লুট ও ভাঙচুর চালিয়ে পালিয়ে যায়। পরে রাস্তায় পার্শ্ববর্তী কারখানার সাকিব নামে এক পথচারী শ্রমিককেও সন্ত্রাসী মারধর করে। এরপর গুলিবিদ্ধ নূর আলম ও আহত সাকিবকে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। রাতে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে তদন্ত শুরু করে।

দুর্বৃত্তদের মধ্যে এলাকার রিপন নামে একজনকে তিনি চিনতে পারলেও বাকীদের চিনতে পারেননি।

ঘটনার কারণ জানতে চাইলে দুর্বৃত্তরা এলাকার মাদক ব্যবসায়ী উল্লেখ করে তিনি বলেন, মাদক ব্যবসাকে কেন্দ্র করে অন্যত্র ওই দুর্বৃত্তদের মাঝে গন্ডগোল হয়েছে। এক পর্যায়ে যাওয়ার পথে দুর্বৃত্তরা অতর্কিত ভাবে তার কারখানায় ঢুকে তান্ডব চালিয়েছে।

এ ব্যাপারে ঘটনাস্থলে পরিদর্শনকারী আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আল নূর তারেক বলেন, রাতে ১০-১৫ জনের একদল দুর্বৃত্ত নার্গিস স্যোয়েটার নামে ওই কারখানায় প্রবেশ করে বিবাদ সৃষ্টি করে। এসময় নূর আলম ও সাকিব নামে দুইজন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে নূর আলম নামে এক শ্রমিকের পায়ে রক্তাক্ত জখম রয়েছে। আহত দুইজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তবে এলাকার লোকজন গুলির শব্দ শুনতে পেয়েছে বলে তাকে জানালেও নূর আলম গুলিবিদ্ধ হয়েছে কি না সে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এঘটনায় এখনো কাউকে আটক করা যায়নি। তবে প্রাথমিক ভাবে ঘটনার কারণ নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *