নিজস্ব প্রতিবেদক.চট্রগ্রাম:

আটা, ময়দা ও বিষাক্ত কেমিক্যাল মিশিয়ে তৈরি করা নকল ও ভেজাল ঔষধ বিক্রির দায়ে চট্রগ্রাম নগরের কালুরঘাট এলাকা থেকে মোহাম্মদ হোসেন নামক এক জনকে আটক করেছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ।

পুলিশ বলছে, আটক ব্যক্তি একই ওষুধ বিভিন্ন নামে বাজারজাত ও আটা, ময়দা ও বিষাক্ত কেমিক্যাল মিশিয়ে তৈরি করা নকল ও ভেজাল ঔষধ বিক্রি করে আসছিল।

শুক্রবার (২০ নভেম্বর) বিকেল তিনটায় নগর পুলিশের লালদীঘি কার্যালয়ে গোয়েন্দা উত্তর বিভাগের উপকমিশনার আলী হোসেন এক সংবাদ সম্মেলনে ভেজাল ঔষধ কারখানার বিস্তারিত তুলে ধরেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপ-পুলিশ কমিশনার আলী হোসেন বলেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় চান্দগাঁও এলাকার কালুরঘাটের তারানন্দন যুগীশ্রাম কালি মন্দিরের সামনে বেলালের বিল্ডিং এ অভিযানের পর এসব তথ্য বের হয়। বিপুল পরিমাণ ভেজাল ওষুধ ও তৈরির সরঞ্জমাদিসহ মো. হোসেন (৪০) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে মহানগর গোয়েন্দা (উত্তর) বিভাগ। এই অপরাধে জড়িত অপর আসামি মাহমুদুল হক (৪৫) এখনো পলাতক আছেন।

তিনি বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত হোসেন যৌন উত্তেজক ওষুধের চাহিদা বেশি থাকায় তারা বিদেশি বিভিন্ন ওষুধের নাম ব্যবহার করে অধিক দামে তাদের পরিচিত ফার্মেসিতে বিক্রয় করে আসছিল। তবে বৈধ কোন কাগজপত্র উপস্থাপন করতে পারেননি। পলাতক আসামি গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে। গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে চান্দগাঁও থানায় নিয়মিত মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

এসময় সিএমপিতে নবাগত অতিরিক্ত উপ-কমিশনার পংকজ দত্তসহ গোয়েন্দা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *