শরিয়তপুর প্রতিনিধি:

তীব্র স্রোতের কারণে পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা এড়াতে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটে নতুন ফেরিঘাটের নির্মাণ কাজ শেষ। এখন অপেক্ষা উদ্বোধনের।

আগামীকাল শুক্রবার মাঝিরঘাট-শিমুলিয়া রুটে ফেরি চলাচল উদ্বোধনের কথা রয়েছে।

শরীয়তপুরের জাজিরার সাত্তার মাদবর-মঙ্গলমাঝি ঘাটে নতুন এই ফেরিঘাট নির্মাণ করা হয়েছে। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) ২১ আগস্ট থেকে ঘাট নির্মাণের কাজ শুরু করে। গতকাল বুধবার বিকেলে ঘাটে পন্টুন স্থাপন করা হয়েছে।

বিআইডব্লিউটিএ’র ঢাকা বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মতিউল জানান, বারবার পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির আঘাত রোধে নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনা অনুযায়ী এই ঘাট পরিবর্তন করা হয়েছে। তীব্র স্রোত না কমা পর্যন্ত শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও মালবাহী ফেরি চলাচল বন্ধ থাকবে। তত দিন এই পথ দিয়ে ছোট আকারের ফেরি চলবে।

ফেরিগুলো পদ্মা নদীর চ্যানেল দিয়ে ভাটিতে যাবে। এতে সেতুর পিলারের সঙ্গে ধাক্কা এড়ানো যাবে বলে মনে করছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

বিআইডব্লিউটিএ’র ঢাকা বিভাগীয় সহকারী কারিগরি প্রকৌশলী ফয়সাল হোসেন জানান, ২৭ আগস্ট আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের জন্য দ্রুত ঘাটটি নির্মাণ করা হয়েছে।

এই নৌপথ দিয়ে ছোট আকারের ফেরিতে শুধু অ্যাম্বুলেন্স, লাশবাহী গাড়ি ও সরকারি কাজে ব্যবহৃত গাড়ি পারাপার করা হবে। জাজিরার সড়ক সরু ও ভারি যানবাহন চলাচলের উপযোগী না হওয়ায় এখনই সব যানবাহন চলাচল সম্ভব নয়।

সড়ক প্রশস্ত হলে পরে সব যানবাহন চলাচলের সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

এদিকে ১৮ আগস্ট থেকে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌ-পথ বন্ধ থাকায় যাত্রীরা পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া রুট ব্যবহার করছেন। বাড়তি চাপে সেখানে তৈরি হচ্ছে যানবাহনের দীর্ঘ সারি। ফেরি পারের জন্য ঘাটে অনেক সময় ধরে অপেক্ষা করতে হচ্ছে যাত্রীদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *